Aug 09, 2023 130 views

কোনও জিনিষ কিনে বা পরিষেবা নিয়ে ঠকে গেছেন? জানুন কী করণীয়

Category: Blog

প্রথমেই জানিয়ে দিই ক্রেতা বা consumer কে বা কারা? আসলে প্রত্যেক মানুষই ক্রেতা। যারা হাট, বাজার বা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে মূল্য দিয়ে কোনও জিনিষ বা পরিষেবা কেনেন। প্রত্যেককেই জীবন ধারণের জন্য কিছু না কিছু কিনতে হয় বা পরিষেবা নিতে হয়। আর এখানেই অনেকেই  হয়তো ঠকে যান বা প্রতারিত হয়েছেন। এরকম মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর যিনি কখনও জিনিষ কিনতে গিয়ে বা পরিষেবা নিতে গিয়ে ঠকেননি। কারণ এ সমাজে ভালো এবং মন্দ পাশাপাশি বিরাজমান। তাই এসব ক্ষেত্রে ঠকে গেলে বা প্রতারিত হলে প্রতিকারের জন্য কোথায় যাবেন বা কোন পদক্ষেপ নেবেন, আসুন জেনে নিই।

যখন কোনও ক্রেতা কোনও প্রতিষ্ঠান বা দোকান থেকে মূল্য দিয়ে জিনিষ বা পরিষেবা কিনে প্রতারিত না বঞ্চিত হন, তখন যে আইনগত প্রতিষ্ঠান থেকে তিনি প্রতিকার পেতে পারেন সেটি হলো ক্রেতা সুরক্ষা আদালত বা consumer court। এই আদালতের প্রধান উদ্দেশ্যই হলো ক্রেতার স্বার্থ সুরক্ষিত করা। প্রতারিত বা ক্ষতিগ্রস্থ ক্রেতার অভিযোগের আইনসম্মত সুষ্ঠু প্রতিকার বা নিষ্পত্তি বিধান করাই ক্রেতা সুরক্ষা আদালতের একমাত্র উদ্দেশ্য। তিনটি স্তরে বিভক্ত এটি, যথা-

১) জেলাস্তরের ক্রেতা আদালত

২) রাজ্যস্তরের ক্রেতা আদালত

৩) জাতীয় স্তরের ক্রেতা আদালত

আপনি কি জানেন যে এই আদালতের একটি অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো, এখানে ক্রেতারা খুবই নূন্যতম খরচে, সহজ সরল পদ্ধতির মাধ্যমে অভিযোগ বা নালিশ জানাতে পারেন। স্ট্যাম্প ছাড়াই সাদা কাগজে হাতে লিখে বা টাইপ করে অভিযোগ জানানো যায়। এছাড়াও দারিদ্র্য সীমার নিচে বসবাসকারীদের কোনরকম ফি জমা দিতে হয় না। এমনকি এখানে অভিযোগ জানানোর জন্য কোনও আইনজীবী রাখা বাধ্যতামূলক নয়। আপনি চাইলে রাখতেও পারেন আবার নাও পারেন। ক্রেতা আদালত এ বিষয়ে আপনাকে কোনোরূপ পীড়াপীড়ি করতে পারবেন না। এমনকী শুনানির জন্যেও আইনজীবী রাখা বাধ্যতামূলক নয়। অভিযোগকারী ক্রেতা  নিজেই  তার মামলা পরিচালনা করতে পারেন। আদালতের রায়ে সন্তুষ্ট না হলে উচ্চস্তরের আদালতে অভিযোগ জানানো যায়। ক্রেতার ক্ষতিপূরণের মূল্য 20 লক্ষ টাকা পর্যন্ত হলে জেলা আদালত এবং যথাক্রমে 20 লক্ষ থেকে এক কোটির মধ্যে হলে রাজ্য আদালত ও 20 লক্ষ থেকে যে কোনো ঊর্ধ্বস্তরিয় অঙ্কের ক্ষেত্রে জাতীয় আদালতে অভিযোগ জানানোর সুযোগ আছে।

জীবন যাপনের জন্য মানুষকে পরিষেবা নিতেই হয়। পেট চালানোর জন্য জিনিসপত্র কিনতেই হয়। কিন্তু ন্যায্য মূল্যে ক্রয় করার পর প্রতারিত বা বঞ্চিত হতে কারই বা ভালো লাগে! তাই এই বিষয়ে সচেতন হোন আজ থেকেই, এখন থেকেই।

এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চোখ রাখুন আমাদের পেজে। কমেন্ট করে জানান যদি আপনার এই সম্পর্কিত কোনও ভয়াবহ অভিজ্ঞতা থেকে থাকে। সচেতন হোন, অন্যায়ের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলুন।

বলো গ্রাহক। Customer Rights Matter!

Your Comment

Related Post